চাকরির নামে থানায় ডেকে তরুণীকে ধ’র্ষণ করলো পুলিশ













ধর্ষণ রুখতে যাদের ভূমিকা সবচেয়ে বেশি, সেই পুলিশকেই এবার দেখা গেল ‘ভক্ষকে’র ভূমিকায়। ধর্ষণ রুখে নয়, বরং থানা চত্বরে তরুণীকে ধর্ষণ করে সংবাদ শিরোনামে উঠে এলো পুলিশ। সম্প্রতি ভারতের অাসাম রাজ্যের কামরূপ জেলার হাজো থানার পুলিশ কোয়ার্টারে এ ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ সূত্রের বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের খবর, পুলিশ কোয়ার্টারের মধ্যে তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে ইতোমধ্যেই পুলিশ অফিসার বিনদকুমার দাসকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

কামরূপ জেলা পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, আটক পুলিশ অফিসারের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেবে পুলিশ। ঘটনার তদন্ত প্রক্রিয়া শুরু করার জন্য ইতিমধ্যেই নির্যাতিতার মেডিক্যাল টেস্ট করিয়েছে পুলিশ। মেডিক্যাল রিপোর্টে প্রাথমিকভাবে ধর্ষণের প্রমাণ মিলেছে বলে জানা গেছে।

এদিকে, পুলিশের অফিসারের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মতো গুরুত্বপূর্ণ অভিযোগ উঠতেই অাসাম সরকারের পক্ষ থেকে এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানানো হয়েছে। পুলিশ অফিসারের বিরুদ্ধে কড়া ধারায় মামলা দায়ের করারও আর্জি জানানো হয়েছে।

অভিযোগ, পুলিশে চাকরি দেওয়ার নামে সম্প্রতি ওই তরুণীকে নিজের কোয়ার্টারে ডাকে অভিযুক্ত ওই পুলিশ অফিসার। বন্ধ ঘরে ওই তরুণীকে লাগাতার ধর্ষণ করা হয়। এদিনের এই ঘটনায় অসুস্থ হয়ে পড়েন ওই তরুণী। চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তির পরই গোটা ঘটনা জানাজানি হয়। অভিযুক্ত ওই পুলিশ অফিসারের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেন ওই নির্যাতিতা। পরে ঘটনার তদন্তে নামে পুলিশ।